মেনু নির্বাচন করুন

১৫নং রমশিদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়

  • সংক্ষিপ্ত বর্ণনা
  • প্রতিষ্ঠাকাল
  • ইতিহাস
  • প্রধান শিক্ষক/ অধ্যক্ষ
  • অন্যান্য শিক্ষকদের তালিকা
  • ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা (শ্রেণীভিত্তিক)
  • পাশের হার
  • বর্তমান পরিচালনা কমিটির তথ্য
  • বিগত ৫ বছরের সমাপনী/পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল
  • শিক্ষাবৃত্ত তথ্যসমুহ
  • অর্জন
  • ভবিষৎ পরিকল্পনা
  • ফটোগ্যালারী
  • যোগাযোগ
  • মেধাবী ছাত্রবৃন্দ

বিদ্যালয়টি ২নং চারখাই ইউ/পি এর ৮নং ওয়ার্ডের রমশিদ গ্রামে অবস্থিত। বিদ্যালয়ের উত্তর পাশ দিয়ে বয়ে গেছে সুরমা নদী। বিদ্যালয়ে ১টি দু’কক্ষ বিশিষ্ট পাকা ও তিন কক্ষ বিশিষ্ট আধাপাকা দালান আছে। বিদ্যালয়ে পদ সংখ্য ০৫টি। বিদ্যালয়ে ৪টি ম্রেণি কক্ষ, ১টি অফিফ কক্ষে ও ১টি নামাজের কক্ষ আছে। বিদ্যালয়ে ৩টি ০৩টি আলমারী, ১৫ চেয়ার, ০৯টি টেবিল, ৪৮টি উচু বেঞ্চ, ৪৮টি নিচু বেঞ্চ ও ১০টি বৈদ্যুতিক পাখা আছে। শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীদের জন্র পৃথক ৩টি শৌচাগার আছে। ১টি গভীর নলকুল ও ১টি অগভীর নলকুল আছে। বিদ্রালয়ে জমির পরিমাণ ৩১ শতাংশ। বিদ্রালয়ের সার্বিক কর্মকান্ড সুষ্ঠুভাবে পরিচালার জন্য বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি, শিক্ষক ও অভিভাবক সমিতি, কল্যাণ সমিতি, স্লিপ কমিটি ও সামাজিক মূল্যায়ন কমিটি আছে। বিদ্যালয়ের দক্ষিণ দিক খোলা প্রান্তর। সবুজ গাছপালা পরিবেষ্টিত একটি মনোরম পরিবেশে বিদ্যালয়টি অবস্থান করছে।

১৯১৬ ইংরেজী

১৯১৬ সালে রমশিদ গ্রামের তৎকালীন জনসাধারণের আন্তরিক প্রচেষ্ঠায় প্রয়াত জগজ্জীবন দে মহাশয়ের দানকৃত ভূমিতে সুরমা নদীর দক্ষিণ তীরে রমশিদ প্রাথমিক বিদ্রালয় স্থাপিত হয়। ১৯৬৪ সালে বিদ্যালয়টি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেলে বর্তমান সভাপতি অদুল জন্দ্র কর ও এলাকাবাসীর সহযোগিতায় প্রয়াত নিহার রঞ্জন দে এর দানকৃত ভূমিতে রমশিদ গ্রামের পশ্চিম পাশে বাঁশ, কাঠ ও টিন দিয়ে বিদ্যালয় গৃহ তৈরী করে স্থান্তর করা হয়। ১৯৭৩ সালে বিদ্রালয়টি জাতীয়করণের আওতায় আসে। পরে অবকাঠামো ও পারিপার্শ্বিক নানা সমস্যায় জর্জরিত বিদ্যালয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে মনোরম ও দর্শনীয় স্থানে স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করেন এলাকাবাসী। বাবু অতুল চন্দ্র কর ও এলাকাবাসীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় নিম্নলিখিত ব্যক্তিবর্গের দানকৃত ৩১ শতাংশ ভূমিতে বিদ্যালয়টি ১৯৯২ সালে স্থানান্তর করা হয়। (১) শ্রী রাকেশ চন্দ্র ধর, সাং রমশিদ (২) শ্রী কানু কুমার দে, সাং রমশিদ (৩) শ্রী ফনি ভূষণ দে, সাং রমশিদ (৪) সরবালাদে ও (৫) বিহারী চরণ দত্ত, সাং রমশিদ তাদের নামে মাত্র দানকৃত ভূমি ১৭ শতাংশ। ৭ শতাংশ ভূমি দান করেন মোঃ আব্দুল মারিক, সাং ফাজিলপুর, ডাক: রানাপিং। তাছাড়া মোঃ নুরুল হক, মোঃ ময়নুল হক ও মোঃ মুমিনুল হক, সাং রমশিদ তাদের দখলে থাকা ৭ শতাংশ ভূমি বিদ্যালয়ের জন্য দান করে। ১৯৯৩-৯৪ সালে সর্ব প্রথম সরকারী অর্থায়নে একটি আধাপাকা ভবন পূণঃ নির্মাণ করা হয়। তারপর ২০০৯ সালে অতিরিক্ত শ্রেণি কক্ষ নির্মাণ পিডিপি-২ এর আওতায় একটি পাকা ভবণ নির্মাণ করা হয়।

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
তাহেরা বেগম ০১৭৮১ ৪২১১১৭ charkhai2uisc@gmail.com

ছবি নাম মোবাইল ইমেইল
তাহেরা বেগম ০১৭৮১ ৪২১১১৭ charkhai2uisc@gmail.com

প্রাক প্রাথমিক ............................ ১৯ জন।

প্রথম শ্রেণি ............................... ২৯ জন।

দ্বিতীয় শ্রেণি .............................. ২৪ জন।

তৃতীয় শ্রেণি .............................. ২৯ জন।

চতুর্থ শ্রেণি ............................... ২৪ জন।

পঞ্চম শ্রেণি ............................... ২৫ জন।

সর্বমোট ................................... ১৫০ জন।

60 %

১১

পরিচালনা কমিটির তথ্য

ক্রঃ নং

নাম

ক্যাটাগরী

পদবী

 

০১

বাতু অতুল চন্দ্র কর

বিদ্যোৎসাহী সদস্য (পুরুষ)

সভাপতি

 

০২

জনাব খালেদ আহমদ

সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের সদস্য

সহ-সভাপতি

 

০৩

জনাব তাহেরা বেগম

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক

সদস্য সচিব

 

০৪

জনাব মেহেরুন্নেছা চৌঃ

বিদ্যাৎসাহী (মহিলা)

সদস্য

 

০৫

জনাব মোঃ আব্দুল মালিক

জমিদাতা সদস্য

সদস্য

 

০৬

জনাব বেলাল আহমদ

মাধ্যমিক শিক্ষ প্রতিনিধি

সদস্য

 

০৭

জনাব জিতেন্দ্র মোহন ধর

সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের শিক্ষক প্রতিনিধি

সদস্য

 

০৮

জনাব অলিউর রহমান

মেধাবী ছাত্র-ছাত্রী অভিভাবক সদস্য

সদস্য

 

০৯

জনাব জামাল উদ্দিন চৌঃ

অভিভাবক সদস্য (পুরুষ)

সদস্য

 

১০

জনাব জিলাল উদ্দিন চৌঃ

অভিভাবক সদস্য (পুরুষ)

সদস্য

 

 

 

 

 

১১

জনাব খাদিজা বেগম

অভিভাবক সদস্য (মহিলা)

সদস্য

 

১২

জনাব আম্বিয়া বেগম

অভিভাবক সদস্য (মহিলা)

সদস্য

 

সাল

পরীক্ষার্থী

পাশের সংখ্যা

পাশের হার

 

২০০৮

১২

১২

১০০%

 

২০০৯

১৫

১২

৮০%

 

২০১০

২১

২০

১০০%

 

২০১১

২৪

১৯

৭৯.১৬%

 

২০১২

২৬

২৩

৮৮%

 

২০০৮ সাল হতে ২০১২ সালের মধ্যে কোন ট্যালেন্টপুল নেই। সাধারণ বৃত্তি ১টি।

এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়া করে অনেকেই আজ দেশে-বিদেশে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে চাকুরীরত আছেন। বিগত ৫ বছরের ফলাফল ও অন্যান্য কর্মকান্ডের ভিত্তিতে বিদ্যালয়টি ‘‘এ’’ গ্রেডে উন্নীত হয়।

বিদ্যালয়টিকে আদর্শ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা। বিদ্যালয়ের ফলাফল শতভাগে উন্নীত করা। এ+ প্রাপ্তির জন্য বিশেষ কোচিং চালু করা। বিদ্যালয়ের পরিবেশ শিশু বান্ধব করার জন্য আনন্দপূর্ণ খেলাধুলার আয়োজন করা। ফুডফিডিং কার্যক্রম চালু করা। কাবিং কার্যক্রম জোরদার করা। ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ও উপস্থিতি বৃদ্ধিকল্পে উদ্ধৃদ্ধকরণ অভিযান পরিচালনা করা।

যোগাযোগ ব্যবস্থা সুগম। রমশিদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, গ্রাম: রমশিদ, ডাক: কাকুরা, উপজেলা: বিয়ানীবাজার, জেলা: সিলেট। বিদ্যালয়টি জেলা সদর থেকে ৩৫ কিঃ মিঃ ও উপজেলা সদর থেকে ২৫ কিঃ মিঃ দূরে অবস্থিত। চারখাই থেকে জকিগঞ্জ রোডে ৫ কিঃ মিঃ দূরে রাস্তার উত্তর পাশে বিদ্যালয়টির অবস্থান। পাকা রাস্তা দিয়ে যে কোন যানবাহনের মাধ্যমে বিদ্যালয়ে সরাসরি যাতায়াত করা যায়।



Share with :

Facebook Twitter